সোফিয়ায় মুগ্ধ বাংলাদেশীরা

সোফিয়ায় মুগ্ধ বাংলাদেশীরা

আল আমিন রাজু, ঢাকাঃ

সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে ঢাকা মাতিয়ে গেল রোবট মানবী সোফিয়া। সোফিয়ার বাচন ও ভাবভঙ্গিতে মুগ্ধ রাজধানীবাসী।

আজ বুধবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে “ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড২০১৭” -এ ‘টেক টক উইথ সুফিয়া’ অনুষ্ঠানে দর্শনার্থীদের সামনে হাজির হয় সোফিয়া। ৩০মিনিটের এ উপস্থাপনায় উপস্থিত কয়েক হাজার
দর্শনার্থীদের মাতিয়ে তোলেন বিশ্বের প্রথম কোন রাষ্ট্রের নাগরিত্ব পাওয়া এ রোবট মানবী। সোফিয়ার ঢাকা আগমনকে ঘিরে আগে থেকেই দেশবাসীর মধ্যে অদিম আগ্রম বিরাজ করছিল। অনুষ্ঠানস্থলে সোফিয়াকে এক ঝলক দেখতে ভিড় জমায় হাজার হাজার উৎসুক তরুণ-তরুনী। সম্পূর্ণে বিনামূল্যে প্রবেশ করার সুবিধায় এ জোয়ার পালে যেন আরও বাতাস লাগে মেলা প্রাঙ্গন যেন উত্তাল হয়ে ওঠে।

আজ বুধবার দুপুর ৩টা ১০ মিনিটে মঞ্চে আনা হয় সোফিয়াকে। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের ‘হল অব ফেম’ মঞ্চে আনা হয় তাকে। এরপর প্রায় ৩০মিনিট তাকে মঞ্চে রাখা হয়। এ সময় গ্রে এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক
গাউছুল আলম শাওন এর উপস্থাপনায় অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করা হয়। এরপর সঞ্চালকের বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তর দেয় সোফিয়া। সঞ্চালক সোফিয়ার কাছে বাংলাদেশ আসার অনুভূতি জানতে চাইলে তিনি বলেন, “বাংলাদেশে আসতে পেরে খুবই গর্বিত অনুভব করছি। আমার খুব ভাল লাগছে”। এসময় সোফিয়া বাংলাদেশের কয়েকটি আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলে দর্শকদের শুনিয়েছেন।

আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স বিষয়ে অন্যতম বক্তা এবং রোবট সোফিয়ার উদ্ভাবক ডঃ ডেভিড হানসন বলেন, “সুফিয়াকে নিয়ে আরও কাজ চলছে। আগামী জানুয়ারির মধ্যে সুফিয়ার পা সংযোজন করতে পারব বলে আশা করছি”। এসময় বাংলাদেশের তরুণদের বিষয়ে ডঃ হানসন আরও বলেন, “বাংলাদেশ তথ্য প্রযুক্তিতে এগিয়ে যাচ্ছে এবং রোবোটিক্সেও উল্লেখযোগ্য কাজ করছে”।

সোফিয়াকে দেখতে সকাল থেকেই লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করেন গিয়াস উদ্দীন। তিতুমীর কলেজের ছাত্র গিয়াস সোফিয়াকে দেখতে পেয়ে খুবই উচ্ছ্বসিত বোধ করেন। হাতেখড়িকে তিনি বলেন, “সোফিয়াকে দেখতে পেয়ে খুবই ভাল লেগেছে। অনেক হুড়োহুড়ি আর ভীড়ের মধ্যে দেখতে হয়েছে। তবুও দেখতে পেয়েছি এও অনেক। তবে তাকে আরো বেশি সময় রাখলে এবং দর্শকদের আরও কাছে থেকে দেখার সুযোগ করে দিলে আরও ভাল লাগত”।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের এপ্রিল মাসে সোফিয়াকে চালু করা হয়। বিশ্বের প্রথম এ হিউম্যানয়েড রোবট তৈরি করে হংকং এর হ্যানসন রোবটিক্স। ব্রিটিশ অভিনেত্রী অড্রে হেফবর্ন এর অনুকরণে তৈরি করা হয় সোফিয়াকে। সামনে থাকা ব্যক্তির বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিতে সক্ষম সোফিয়া তার কথার ধরনের সাথে মিল রেখে চেহারায় অভিব্যক্তিও প্রকাশ করতে সক্ষম। ২০১৭ সালে বিশ্বের প্রথম এবং একমাত্র হিসেবে কোন দেশের নাগরিত্ব পায় সোফিয়া। সৌদি আরব তাকে এ নাগরিকত্ব দেয়। বিশ্ব ভ্রমণের অংশ হিসেবে ঢাকায় সফরে আসে এই রোবট মানবী।

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password