প্রধান শিক্ষককে মারধরের প্রতিবাদে ৩৯ টি বিদ্যলয়ে কর্মবিরতী পালন

আব্দুল্লাহ আল নোমান, আমতলী, বরগুনা:

আমতলীর খেকুয়ানী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধানি শিক্ষক এসএম মহিউদ্দিন স্বপনকে ডেকে নিয়ে বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ও যুবলীগ নেতা আব্দুস সোবহান লিটন কর্র্তৃক মার ধরের প্রতিবাদে বুধবার সকালে উপজেলার ৩৯ টি বিদ্যালয়ের সহাস্রাধীক শিক্ষক কর্মচারীরা আধাঘন্টা কর্মবিরতী পালন করে।

বাংলাদেশ শিক্ষক কর্মচারী ঐক্য ফ্রন্টের ডাকে সারা দেশ ব্যাপী কর্মসূচীর অংশ হিসেবে বুধবার সকাল ১০ টা থেকে সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত উপজেলার ৩৯ বিদ্যালয়ের প্রায় সহাস্রাধীক শিক্ষক ও কর্মচারীরা কর্মবিরতি পালন করে। কর্মবিরতী পালন কালে সকল বিদ্যালয়ের পাঠদান এবং অফিসের সকল কার্যক্রম বন্ধ রেখে শিক্ষক ও কর্মচারীর সমাবেশ করে। এসময় অনেক শিক্ষার্থীরাও স্বত:ফূর্তভাবে শিক্ষকদের সাথে আন্দোলনে যোগ দেয়। আমতলী একে মডেল পাইলট হাইস্কুলের সমাবেশে সভপত্বি করেন আমতলী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি আব্দুর রশিদ মিয়া। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এ্যাডভোকেট এমএ কাদের মিয়া, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো: বজলুর রহমান ও শিক্ষক মো: নিয়াজ মোর্শেদ প্রমুখ।

আমতলীর খেকুয়ানী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের একটি নিয়োগ বিঞ্জপ্তি পত্রিকায় প্রকাশকে কেন্দ্র করে স্কুলের প্রধান শিক্ষক এসএম মহিউদ্দিন স্বপনকে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ও যুবলীগ নেতা আবদুস সোবহান লিটন তার ভাই সান্টু হাওলাদার ও শ্যালক লিমন শরীফের নেতৃত্বে স্কুলের অফিস কক্ষে আটক করে গত শনিবার বিকেল ৫টায় মারধর করে আটক করে রাখে। খবর পেয়ে স্থানীয়দের সহায়তায় পুলিশ আটক অবস্থা থেকে উদ্ধার করে। এঘটনায় ওই দিন রাতেই আমতলী থানায় ৫ জনকে আসামী করে প্রধান শিক্ষক বাদী হয়ে মামলা করেন। এবং পরের দিন শিক্ষকরা আমতলী উপজেলা পরিষদ চত্বরে মানব বন্ধন কর্মসূচী পালন করে। এদিকে প্রধান শিক্ষক এসএম মহিউদ্দিন স্বপনকে ডেকে নিয়ে মারধরের কারনে বরিশাল মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের স্কুল পরিদর্শক আবুল বাশার তালুকদার মঙ্গলবার সকালে সভাপতি আব্দুস সোবহান লিটনকে কারন দর্শাও নোটি প্রদান করে।

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password